স্কুলের নিয়মাবলি

ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীদের অবশ্য করণীয়:

 

১।    ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠানের উন্নতি এবং শৃঙ্খলা রক্ষার ব্যাপারে দায়িত্বশীল হতে হবে।

২।    ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়মিত স্কুলে উপস্থিত থাকতে হবে। স্কুলে অনুপস্থিত থাকলে, আগেই অনুপস্থিতির কারণ জানিয়ে অভিভাবকের লেখা আবেদনপত্র শ্রেণি শিক্ষকের কাছে জমা দিতে হবে। বিশেষ কারণে পূর্বে জানানো সম্ভব না হলে স্কুলে আসার দিনেই তা প্রদান করতে হবে। কোন কারণে স্কুল থেকে ছুটির পূর্বে চলে যেতে হলে অভিভাবকের অনুমতিপত্র লাগবে। অসুস্থতার কারণে অনুপস্থিত থাকলে ডাক্তারের সার্টিফিকেটসহ দরখাস্ত অসুস্থ কালীন সময় জমা দিতে হবে। পরীক্ষার সময় জমা দিলে তা গ্রহণযোগ্য হবে না।

৩।    স্কুলের প্রাতঃসমাবেশ ও জাতীয় সঙ্গীত শুরু হওয়ার পূর্বে ৭.৪৫ মিনিটের মধ্যে স্কুলে প্রবেশ এবং প্রত্যেককে সমাবেশে অংশগ্রহণ করতে হবে। অপারগ শিক্ষার্থীদের গেটের বাইরে সুশৃঙ্খলভাবে অপেক্ষা করতে হবে। স্কুলের কার্য্‌ক্রম শুরু হবার পর কোন শিক্ষার্থীকে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না।

৪।    স্কুলের ইউনিফর্ম ছাড়া কোন শিক্ষার্থী স্কুলে প্রবেশ করতে পারবে না। স্কুলের যে কোন অনুষ্ঠান এবং স্কুলের পক্ষ থেকে অন্য কোথাও কোন অনুষ্ঠানে যোগদানের জন্য স্কুলের নির্ধারিত পোশাক অবশ্যই পরিধান করতে হবে। পোশাক-পরিচ্ছন্ন থাকা বাঞ্জনীয়।

৫।    স্কুল ইউনিফর্ম

       বালকঃ

       (ক) আকাশী নীল শার্ট্ পকেটে সাদা বর্ডার।

       (খ) নেভী ব্লু প্যান্ট (জীনস পরা যাবে না)।

       (গ) সাদা কেড্‌স ও সাদা মোজা।

       (ঘ) নেভী ব্লু সোয়েটার (এর সঙ্গে অন্য কোন রং থাকবে না)।

       বালিকাঃ

       (ক) আকাশী নীল ফ্রক, সাদা বেল্ট, সাদা কলার, হাতায় সাদা বর্ডার।

       (খ) সাদা কেড্‌স ও সাদা মোজা।

       (গ) সাদা চুলের ফিতা/কালো ক্লীপ/কালো রবার ব্যান্ড।

       (ঘ) নেভী ব্লু সোয়েটার বা কার্ডিগান (অন্য কোন রং থাকবে না)।

৬।    ছোট টাওয়েল অথবা ন্যাপকিন প্রতিদিন সঙ্গে আনতে হবে।

৭।    কোন ছাত্র/ছাত্রী বড় নখ রাখতে পারবে না এবং নখে কোন রং লাগাতে পারবে না।

৮।   পঞ্চম থেকে দশম শ্রেণির মেয়েরা সাদা ফিতা দিয়ে দুই বেনী করে চুল বেঁধে আসবে। যাদের চুল ছোট তারা ক্লিপ দিয়ে চুল আটকিয়ে আসবে।

৯।    ছাত্ররা লম্বা চুল রাখতে পারবে না। ঠিকভাবে চুল ছেঁটে আসবে। স্কুলের ভেতরে ছাত্ররা কোন অলংকার বা সানগ্লাস পরতে পারবে না।

১০।  স্কুল চলাকালে ছাত্র/ছাত্রীরা স্কুল গেটের বাইরে যেতে পারবে না।

১১।  স্কুলের শৃঙ্খলার পরিপন্থী অশালীন বই, ছবি, ছুরি/চাকু, লাঠি ইত্যাদি স্কুলে আনা নিষেধ। উপরিউক্ত যে কোন একটি আনলে কঠোর শাস্তি দেয়া হবে। অপরাধের গুরুত্ব অনুসারে শিক্ষার্থীকে স্কুল থেকে বহিষ্কার পর্য্‌ন্ত করা যেতে পারে। স্কুল চলাকালীন সময়ে অকারণে শ্রেণি কক্ষের বাইরে শিক্ষার্থীদের দেখা গেলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

১২।  কোন শিক্ষার্থী ব্যক্তিগত খেলার সরঞ্জাম যেমন-ফুটবল/ক্রিকেট/ব্যাডমিন্টন/দাবা/লুডু/ ভিডিও গেম ইত্যাদি স্কুলে আনতে পারবে না।

১৩।  স্কুলের সব রকম সম্পদ ব্যবহারে যত্নবান হতে হবে। কোন আসবাবপত্র বা যন্ত্রপাতির ক্ষতিসাধান করলে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

১৪।  ছাত্র/ছাত্রীরা একে অপরের কাছ থেকে বই/টাকা/কলম/ঘড়ি/অলংকার ইত্যাদি ধার দেয়া নেয়া স্কুল প্রাঙ্গণের মধ্যে করতে পারবে না।

১৫।  স্কুল শুরু ও ছুটির সময় সুশৃঙ্খলভাবে স্কুলে প্রবেশ ও স্কুল ত্যাগ করতে হবে। টিফিনের বিরতির সময় স্কুলের শৃঙ্খলার পরিপন্থী কোন কাজ করতে পারবে না। স্কুল ছুটির পর কোন ছাত্র-ছাত্রী স্কুলের কোন খালি কক্ষ বা স্কুলের বাইরে অবস্থান করতে পারবে না।

১৬।  প্রতিদিনের পড়া প্রতিদিন শিখে আসতে হবে। বাড়ির কাজ, শ্রেণির কাজ ও শ্রেণি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করা বাধ্যতামূলক।

১৭।  সকল পরীক্ষায় পাস নম্বর ৪০%। যেসব শ্রেণিতে ও বিষয়ে সৃজনশীল ও বহুনির্বাচনি এবং শ্রেণি পরীক্ষা রয়েছে সে সব ক্ষেত্রে সৃজনশীল, বহুনির্বাচনি ও শ্রেণি পরীক্ষায় পৃথকভাবে পাস করতে হবে। পাস নম্বর ৪০%।

১৮।  স্কুলে অধ্যয়নরত অবস্থায় একই শ্রেণিতে দুইবার অনুত্তীর্ণ্ হলে টি.সি দেয়া হবে।

১৯।  কোন ছাত্র-ছাত্রী স্কুলে মোবাইল টেলিফোন আনতে পারবে না।

২০। পাশ নম্বর বন্টনঃ

সৃজনশীল-

৭০

এ পেতে হবে

২৮

বহুনির্বাচনি-

৩০

এ পেতে হবে

১২

শ্রেণি পরীক্ষা-

২০

এ পেতে হবে