পরিচালকের বাণী


জাতিসংঘ ঘোষিত সর্বজনীন মৌলিক মানবাধিকারের মধ্যে অন্যতম হলো শিক্ষা । আর একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার একমাত্র হাতিয়ার তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার । বিজ্ঞানের প্রতিনিয়ত গবেষনালব্ধ জ্ঞান এবং প্রযুক্তি উম্মোচন করেছে মানব সভ্যতার বিষ্ময়কর দ্বার । শিক্ষা, সংস্কৃতি ও জীবন-জীবিকাসহ সব ক্ষেত্রেই লেগেছে তথ্য প্রযুক্তির পরম ছোঁয়া । অপার সম্ভাবনা ও বৈপ্লবিক পরিবর্তন এসেছে এই তথ্য প্রযুক্তির ছোঁয়ায় । আমাদের শিক্ষা পদ্ধতিতেও আমুল পরিবর্তন এনেছে তথ্য ও প্রযুক্তির ব্যবহার । দেশের গহীন প্রত্যন্ত অঞ্চলের স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসাগুলোতেও আজ তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার সত্যিই অকল্পনীয় । বর্তমানে ICT যুগে অত্র প্রতিষ্ঠানে ওয়েবসাইট বিনির্মাণে ঊর্ধ্বতন কতৃপক্ষসহ সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা ও সেবাদানকারীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি। তার-ই  ধারাবাহিকতায় ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে অত্র প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক কর্মচারী  সবাই একসাথে কাজ করে যাচ্ছে। ICT এখন প্রতিষ্ঠানের সকল কর্মকাণ্ডের কেন্দ্রবিন্দু। একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে দেশকে আধুনিক ও ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপে গড়ার ক্ষেত্রে যুগোপযোগী ও প্রযুক্তি নির্ভর মানসম্মত শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। আমার বিশ্বাস এর যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করতে পারলে বিশ্বায়নের যুগে আমরাও সমৃদ্ধ ও উন্নত জাতি হিসেবে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারব। নির্জন পাখি ডাকা, ছায়া ঢাকা প্রকৃতির এক মনোরম ও মনোমুগ্ধকর পরিবেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েরর প্রাণকেন্দ্রে ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল ও কলেজ অবস্থিত। ’জ্ঞানই শক্তি’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে এ প্রতিষ্ঠান শিক্ষা বিস্তারে নেতৃত্ত্বস্থানীয় ভূমিকা পালন করবে এই আমার প্রত্যাশা।

 

 

অধ্যাপক সৈয়দা তাহমিনা আখতার

পরিচালক
শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

আই.ই.আর
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়